কচুয়া উপজেলা সাবেক ছাত্রলীগ তুর্কী ৯০পরবর্তী ছাত্রলীগ শ্লোগান মাস্টার খ্যাত পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদপ্রার্থী কামাল হোসেন অন্তর (সাদা কামাল) কে জেল হাজতে প্রেরন বিভিন্ন মহলের তীব্র নিন্দা!

কচুয়ারডাক নিউজ ডেস্কঃ কচুয়া উপজেলা সাবেক ছাত্রলীগ তুর্কী ৯০ পরবর্তী ছাত্রলীগ শ্লোগান মাস্টার খ্যাত, হাজার হাজার ছাত্রলীগ যুবলীগ কর্মী বাহীনীর পথ প্রদর্শক, দুই দুইবারের পৌরসভা জনপ্রিয় কাউন্সিলর ও প্যানেল মেয়র, উপজেলা যুবলীগ সিনিয়র সহ-সভাপতি আসন্ন পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদপ্রার্থী কামাল হোসেন অন্তর (সাদা কামাল) গ্রেফতার পরবর্তী নিন্দা ও নিঃশর্ত মুক্তি চেয়ে- ইশতিয়াক আহমেদ শরীফ!
বঙ্গবন্ধুর মাজার জেয়ারাত করে এসেই জেলে যেতে হলো এই মুজিব সৈনিক কে-
যে অদৃশ্য শক্তি কচুয়া উপজেলা পরিষদের দুইবারের সফল জনপ্রিয় চেয়ারম্যান শাহজাহান শিশির ভাইকে মিথ্যা ষড়যন্ত্রমূলক মামলার মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করেছিলো। আপনার আজ কারাগারে যাওয়ার পিছনে তারাই মূখ্য ভূমিকা পালন করছে। কারণ, উপজেলা চেয়ারম্যান কারাগারে যাওয়ার পর আন্দোলন সংগ্রামের সম্মুখ যোদ্ধা ছিলেন আপনি। তারা আস্তে আস্তে সকল আওয়ামী লীগের নিবেদিত কর্মীদের নিষ্পেষিত করে দিবে, কারণ ওদের উদ্দেশ্য ভিন্ন। তৃনমুল আওয়ামী লীগকে ধ্বংস করে মূলত ওরা জামায়াত বিএনপিকে পৃষ্ঠপোষকতা করছে।
আর এদেরকে ছাড় দেওয়া যাবেনা। আর নয় প্রতিবাদ, প্রতিরোধ করে এই অপশক্তিকে রুখে দিতে হবে। জননেত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার তৃনমুল আওয়ামী লীগকে বাঁচাতে ঐক্যবদ্ধ প্রতিরোধ গড়ে তুলুন।
কচুয়া পৌরসভার প্যানেল মেয়র, শাহজাহান শিশির ভাইয়ের মুক্তি আন্দোলনের অগ্র-সৈনিক কামাল হোসেন ভাইয়ের শর্তহীন মুক্তি চাই।
ইশতিয়াক আহমেদ শরীফ সহ সভাপতি ছাত্রলীগ, ঢাকা মহানগর দক্ষিন!
গত ০২/১১/২০ পৌরসভার প্যানেল মেয়র ও উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সহ সভাপতি কামাল হোসেন অন্তর ভাই গত২০১৩ সালের দেওয়া ষড়যন্ত্রমূলক মামলায় দীর্ঘদিন হাজিরা না দেওয়ায় আজকে আদালতে হাজিরা দিতে যান উনার দীর্ঘদিন হাজিরা না থাকায় আদালত উনার জামিন না মঞ্জুর করেন- ইব্রাহীম খলিল বাদল সভপতি কচুয়া উপজেলা ছাত্রলীগ!