করোনা, বন্যা ও ঈদ ভাবনায় আমাদের অবস্থান|মেহেদী হাসান শাকীল

জনজীবন বিপন্ন। এক ভয়ংকর সংকটকাল অতিক্রম করছি আমরা; পাচ্ছিনা উত্তরোণের কোন উপায়।

বৈশ্বিক মহামারী করোনা ভাইরাসের প্রভাবে মানুষ যখন দিশেহারা যাত্রী;তখনি বন্যার ভয়াল থাবায় শংকিত জনজীবন। একদিকে করোনা সংক্রমণ অন্যদিকে বন্যার তান্ডব;প্রচন্ড ধাক্কা লেগেছে জীবনযাত্রায়।

বেচেঁ থাকার তাগিদে মানুষ যুদ্ধ করছে Covid-19 নামক অজানা,অচেনা,অদেখা এক ব্যাধির সাথে। এ লড়াইয়ের পূর্নাঙ্গ প্রস্তুতি ছিল না কোন দেশেরই।

বৈশ্বিক এ মহামারীর সংকট না কাটতেই দেশের প্রকৃতিতে যোগ হয়েছে ভিন্ন আরেকটি দুর্যোগ বন্যা।
সারাদেশের প্রায় ২৬ টি জেলার অধিকাংশ গ্রাম প্লাবিত। নিদারুণ কষ্টে দিন কাটাচ্ছে বর্ন্যাত মানুষ গুলো। তাদের অসহায়ত্বের ছবি ভাসছে টিভির পর্দায়। এদিকে, যে বন্যা ধেঁয়ে আসছে অল্প ক’দিনেই দেশের দুই-তৃতীয়াংশ কবলিত হয়ে যেতে পারে।

প্রাকৃতিক দুর্যোগের দেশ বাংলাদেশ। ভৌগলিক অবস্থান, ভূতাত্বিক গঠন ও জনসংখ্যার ঘনত্বের কারণে বিশ্বের দুর্যোগপ্রবণ দেশগুলোর অন্যতম।

এছাড়াও বাংলাদেশ একটি নদীমাতৃক দেশ।এদেশের মধ্য দিয়ে ছোট-বড় প্রায় ২৩০ টি নদী বয়ে গেছে। এজন্যই প্রাকৃতিক দুর্যোগে বাংলাদেশে প্রায় বন্যার প্রকোপ বেশি।

তবু,এ ধরণের প্রাকৃতিক দুর্যোগ নতুন কিছু নয়। এমন ভয়াল বহু পরিস্থিতির মুখোমুখি হয়ে
বাংলাদেশের মানুষ শত সংগ্রামে ঘুরে দাড়িয়েছে।
কিন্তু এবারের প্রেক্ষাপট সম্পূর্ণ ভিন্ন। করোনা ভাইরাস সংক্রমন ও বন্যার কড়াল গ্রাস দুটি দুর্যোগ একসাথে মোকাবেলা করা বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে দাড়িয়েছে। কোনটারই নিয়ন্ত্রণ আজ আমাদের হাতে নেই।

Covid-19 সংক্রমনকালে বিশ্ব অর্থনীতির চাকা থমকে গেলেও বাংলাদেশের অর্থনীতির গতিতে তেমন প্রভাব পড়েনি। খাদ্যের কোনো ঘাটতি নেই। কিন্তু ব্যবস্থাপনায় রয়েছে নানা অসংগতি,যে কারণে সুষম বন্টনে বিঘ্ন সৃষ্টি হচ্ছে।

এ সংকটেই,আগমনী বার্তা নিয়ে এসেছে ঈদ উল আযহা, ইসলাম ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় দুটো ধর্মীয় উৎসবের দ্বিতীয়টি। যেটি কুরবানির ঈদ নামেও পরিচিত। পরিস্থিতি,প্রেক্ষাপট একেবারেই ভিন্ন। প্রাণঘাতী মহামারী করোনা ভাইরাস,বন্যার প্রকোপ পাল্টে দিয়েছে ঈদের সেই চিরচেনা আমেজ। এভাবেই ঈদ সংশ্লিষ্ট সকল কার্যক্রম সম্পন্ন করতে হবে।

পরিশেষে,সকল আধার কাটিয়ে ঈদ-উল আযহা আমাদের জীবনে বয়ে আনুক অনাবিল সুখ,শান্তি ও সমৃদ্ধি। ত্যাগ ও কোরবানীর মহান আদর্শ ধারণ করে জীবন পরিচালিত করাই হোক আমাদের একমাত্র লক্ষ্য।

কলমেঃ মেহেদী হাসান শাকীল