চাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচনে ৩১ হাজার ২শ’ ১২ ভোট বেশি পেয়ে মেয়র নির্বাচিত হলেন অ্যাডঃমোঃজিল্লুর রহমান জুয়েল!

চাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচনে ৩১ হাজার ২শ’ ১২ ভোট বেশি পেয়ে মেয়র নির্বাচিত হলেন অ্যাডঃমোঃজিল্লুর রহমান জুয়েল!

বিপুল ভোটের ব্যবধানে চাঁদপুর পৌরসভার মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন অ্যাডঃ মোঃ জিল্লুর রহমান জুয়েল। তিনি নৌকা প্রতীক নিয়ে ৩৪ হাজার ৮শ’ ২৫ ভোট পেয়েছেন। আর ধানের শীষ প্রতীকে মোঃ আক্তার হোসেন মাঝি পেয়েছেন ৩ হাজার ৬শ’ ১৩ ভোট। জিল্লুর রহমান জুয়েল আক্তার মাঝি থেকে ৩১ হাজার ২শ’ ১২ ভোট বেশি পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। আর অপর প্রার্থী ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মামুনুর রশিদ বেলাল হাতপাখা প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ১ হাজার ২শ’ ৩৩ ভোট। মেয়র পদে বিএনপির প্রার্থীসহ প্রতিদ্বন্দ্বী দুই প্রার্থীর জামানত বাজেয়াপ্ত হয়েছে। এদিকে আওয়ামী লীগ প্রার্থী জিল্লুর রহমান জুয়েল ৫২টি কেন্দ্রের সব ক’টিতে বিপুল পরিমাণ ভোটের ব্যবধানে জয়লাভ করেন।

গতকাল শনিবার সকাল নয়টা থেকে বিকেল পাঁচটা পর্যন্ত পৌর এলাকার ৫২টি কেন্দ্রে একটানা ভোটগ্রহণ চলে। অনেকটা শান্তিপূর্ণ পরিবেশে এ নির্বাচন সম্পন্ন হয়। ভোটারদের উপস্থিতিও ছিলো চোখে পড়ার মতো। এ নির্বাচনে বিপুল সংখ্যক নারী ভোটারের উপস্থিতি ছিলো উল্লেখযোগ্য। মোট ১ লাখ ১৬ হাজার ৪শ’ ৮৭ ভোটারের মধ্যে ভোট প্রদান করেছেন ৩৯ হাজার ৭শ’ ৮ জন। শতকরা হারে ভোট কাস্ট হয়েছে ৩৪ ভাগ। ভোটগ্রহণ শেষে সন্ধ্যা থেকে সদর উপজেলা পরিষদের হলরুমে ফলাফল ঘোষণা কার্যক্রম শুরু হয়। প্রতিটি কেন্দ্রের ফলাফল ঘোষণা এবং যোগ করা শেষে চূড়ান্ত ফলাফল ঘোষণা করেন রিটার্নিং অফিসার মোঃ তোফায়েল হোসেন। ফলাফল ঘোষণা শেষে দেখা যায় যে, প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী আক্তার হোসেন মাঝি থেকে বিপুলসংখ্যক ভোট বেশি পেয়ে জিল্লুর রহমান জুয়েল মেয়র নির্বাচিত হন।

এছাড়া ঘোষিত ফলাফলে দেখা গেছে যে, পৌরসভার ১৫টি সাধারণ ওয়ার্ডের মধ্যে ১৪টিতেই আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থীরা জয়লাভ করেছেন। শুধুমাত্র ৯নং ওয়ার্ডে বিএনপি মনোনীত কাউন্সিলর প্রার্থী চাঁন মিয়া মাঝি নির্বাচিত হন। এছাড়া পাঁচটি সংরক্ষিত ওয়ার্ডের সব কটিতেই আওয়ামী লীগ সমর্থিত নারী কাউন্সিলর প্রার্থীরা বিজয়ী হন।