ফেঁসে যাচ্ছেন সেলিম মাহমুদ-সালাউদ্দিন মাহমুদ কচুয়া উপজেলা চেয়ারম্যান ইস্যুতে ভোরের পাতার কথিত সম্পাদক ও প্রকাশক এরতেজার সাথে কথোপকোথন ভাইরাল, আগে যেটা শিশির ভাইয়ের বিরুদ্ধে নিউজ হয়েছে,এটা প্রভাবিত করে নিউজটা করানো হয়েছিল, এটা উৎফল দাস আমার রিপোর্টার সে করেছিল এটা দরকার হলে আমরা ডিলিট করে দিব, আপানার রিকভারি করে দিব !

ফেঁসে যাচ্ছেন সেলিম মাহমুদ, সালাউদ্দিন মাহমুদ কচুয়া উপজেলা চেয়ারম্যান ইস্যুতে ভোরের পাতার কথিত সম্পাদক ও প্রকাশক এরতেজার সাথে কথোপকোথন ভাইরাল, আগে যেটা শিশির ভাইয়ের বিরুদ্ধে নিউজ হয়েছে,এটা প্রভাবিত করে নিউজটা করানো হয়েছিল, এটা উৎফল দাস আমার রিপোর্টার সে করেছিল এটা দরকার হলে আমরা ডিলিট করে দিব, আপানার রিকভারি করে দিব !

ভোরের পাতার প্রতিনিধি এরতেজা সাহেবের সাথে একটু সালাম বিনিময় করেন কথা বলেন –

ভোরের পাতা সম্পাদক কাজী এরতেজা হাসানঃ আসসালামুয়ালাইকুম ব্রাদার

ওইপ্রান্ত থেকেঃ হেলো আসসালামুয়ালাইকুম

ভোরের পাতা সম্পাদক কাজী এরতেজা হাসানঃ হ্যা কেমন আছেন

ওইপ্রান্ত থেকেঃ হ্যা আছি ভালো, ভালো আছেন আপনি

ভোরের পাতা সম্পাদক কাজী এরতেজা হাসানঃ আছি ব্রাদার ভালো আছি, আপনার বাড়ী কচুয়া আমার বাড়ী সাতক্ষীরা, একজন আরেকজনকে ছিনি না, আপনার কচুয়ার মাননীয় উপাচার্য হচ্ছে আমার ভোরের পাতার প্রধান উপদেষ্টা

ওইপ্রান্ত থেকেঃ মাশাআল্লাহ গুড

ভোরের পাতা সম্পাদক কাজী এরতেজা হাসানঃ সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ডঃ মহীউদ্দিন খান আলমগীর কে আমি মামা ডাকি

ওইপ্রান্ত থেকেঃ হা হা তা তো আর ভালো

ভোরের পাতা সম্পাদক কাজী এরতেজা হাসানঃ সবই তো আমরা নিজেদের মানুষ আমাদের মধ্যে এত ভুলবুঝাবুঝি হচ্ছে কেন ?

ওইপ্রান্ত থেকেঃ আমরা সবিই তো এখানে নিজেদের মানুষ আমাদের মধ্যে তো ভুল্বুঝাবুঝি-

ভোরের পাতা সম্পাদক কাজী এরতেজা হাসানঃ ড.সেলিম  আমার শালাও না দুলা ভাইও না, আপনি ওকে মেরে ফেলেন, ওকে ফিজিক্যালি শারীরিক, মানুষিক যা পারেন করেন,আমার অসুবিধা নেই, আদর্শের সাথে আদর্শের লড়াই চলবে, যারা আদর্শিক না তারা এমনিতে আস্তাকুড়ে চলে যাবে।

ওইপ্রান্ত থেকেঃমাশাআল্লাহ গুড গুড

ভোরের পাতা সম্পাদক কাজী এরতেজা হাসানঃ আমি একজন জেলা আওয়ামীলীগের ভাইস-প্রেসিডেন্ট সরকার অনুমোদিত একজন সি আই পি, আপনি আমার সন্মান নষ্ট করলে আমার রিপোর্টার তো তখন এ জিনসটা মেনে নিবে না। আর আগে যেটা শিশির ভাইয়ের বিরুদ্ধে নিউজ হয়েছে,এটা প্রভাবিত করে নিউজটা করানো হইয়েছিল, এতা উতফল দাস , আমার রিপোর্টার সে করেছিল এটা দরকার হলে আমরা ডিলিট করে দিব। আপনি জিনিসগুলা নিয়ে এত বেশি ইয়ে করা ঠিক হবে না ।

ওইপ্রান্ত থেকেঃজি জি

আংশিক পুরো ভিডিও আসছে শিগ্রই ……।চোখ রাখুন কচুয়ারডাক সত্য প্রকাশে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ।