বাংলাদেশে জাতীয় বীমা দিবস উদযাপন উন্নত বিশ্বে বীমা ছাড়া কোনো মানুষ পাওয়া যায় না-জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ

কচুয়ারডাক নিউজডেস্কঃ বাংলাদেশে জাতীয় বীমা দিবস উদযাপন উন্নত বিশ্বে বীমা ছাড়া কোনো মানুষ পাওয়া যায় না-জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ

‘মুজিববর্ষের অঙ্গীকার-বীমা হোক সবার’ এ প্রতিপাদ্য বিষয় নিয়ে ১ মার্চ সোমবার সকাল সাড়ে ১০টায় চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে জাতীয় বীমা দিবস উদ্যাপন উপলক্ষে আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

এতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ বলেন, জীবনের ঝুঁকি ও সম্পদের ঝুঁকি হ্রাস করতে প্রত্যেকের বীমা করা প্রয়োজন। ব্যাংক খাতের তুলনায় বীমা খাতে তেমন অগ্রগতি হয়নি। স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতার অভাবের কারণে বাংলাদেশ বীমা খাত এগোতে পারে নি। তিনি আরো বলেন, নিজেদের বীমা পরিকল্পনার কথা সঠিকভাবে সবাইকে অবগত করানো দরকার। সাধারণ জনগণের মাঝে সচেতনতা বৃদ্ধি করতে আপনাদের বীমার পরিকল্পনাগুলো সঠিকভাবে বুঝাতে হবে। এ খাতটি একদিনের খাত নয়, এ খাতটি সারাবিশ্বে যেভাবে এগিয়ে গেছে ঠিক সেভাবেই বাংলাদেশেও এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে। উন্নত বিশ্বে প্রতিটি মানুষ বীমা করে থাকে। বীমা ছাড়া কোনো মানুষ পাওয়া যায় না।

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ আবদুল্লাহ আল মাহমুদ জামানের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি ইকবাল হোসেন পাটওয়ারী। অন্যান্যের মধ্যে ইনস্যুরেন্স কোম্পানিগুলোর পক্ষে বক্তব্য রাখেন পপুলার লাইফ ইনস্যুরেন্সের পক্ষে দেলোয়ার হোসেন উজ্জ্বল, জীবন বীমা কর্পোরেশনের জামিল হোসেন পাটওয়ারী, ন্যাশনাল লাইফ ইনস্যুরেন্সের তাজুল ইসলাম, মেট লাইফ ইনস্যুরেন্সের মাকসুদুর রহমান, ফারইস্ট ইসলামী লাইফ ইনস্যুরেন্সের হারুনুর রশিদ, মেঘনা লাইফ ইনস্যুরেন্সের মানিক খান প্রমুখ।

আলোচনা সভা শেষে পপুলার লাইফ ইনস্যুরেন্সের পক্ষ থেকে ৩ জনকে মেয়াদোত্তীর্ণ বীমার চেক প্রদান করা হয়। এছাড়াও বীমার গুরুত্ব নিয়ে আয়োজিত রচনা প্রতিযোগিতার বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন মেটলাইফ অ্যালিকোর ব্রাঞ্চ ম্যানেজার মোঃ ছদরুদ্দিন, গীতা পাঠ করেন ডেল্টা লাইফ ইনসিওরেন্সের বাসুদেব রায়।