কচুয়ার সাবেক তুখড় ছাত্রনেতা মনির প্রধানের চিঠি ও প্রতিবাদ

কচুয়ার ডাক ডেস্ক: সাবেক তুখোড় ছাত্রনেতা মনির প্রধানের প্রতিবাদ ও চিঠি।
প্রিয় কচুয়াবাসি
আমি এখানে তিন জন নেতার ছবি দিয়েছি উনারা কচুয়ার বর্তমান নেতা উনাদের বাড়ি ১২ নং , ৫নং, ১১ নং। এই তিন জন নেতাকে আমরা কচুয়ার রাজনীতির কর্নদার বলি , আজকে উনারা সংবাদ সম্মেলন করছেন একটা সাজানো নাটক নিয়ে যা গতকালের রাত্রে সারে ১১ টা থেকে ১২ পর্যন্ত উনারা অভিনয় করেছিলেন। আপনাদের কাছে অভিনয়টা কেমন লেগেছে আমি জানিনা তবে এই কথা বলতে পারি আমার কাছে ওদের অভিনয় ভালো লাগে না, উনারা জাতীর জনক বঙ্গবন্দুর কন্যা তথা মাননীয় দেশের প্রধান জননেএি শেখহাসিনা আসবেন, তাহার মিটিং নস্যাৎ কারির বিরোদ্দ্যে ভালো কথা।
কচুয়াবাসি আমার প্রশ্ন আপনাদের কাছে, নস্যাৎকারি কারা, জনাব খান সাহেবের পাসাপাসি যিনি নৌকার টিকেট ছান তিনি নাকি ছবিতে দেওয়া এই তিন জন আমার প্রশ্ন আপনাদের কাছে। উপরে ওনারা কে কোন ইউনিয়নের লোক আমি লিখে গিয়েছি।
হে কচুয়া বাসি আপনারা বলুনতো গত ইউনিয়ন নির্বাচনে এই তিন নেতা কি জাতীর জনকের মার্কা নৌকার জন্য কাজ করেছেন, নাকি টাকার কাছে নিজেদেরকে বিলিয়ে দিয়েছেন। আজ একজন ভালো মানুষ রাজনীতিতে আসবেন এটা ওনাদের ভালো লাগে না, মানতে পারেন না, কিন্তু আমরা জানি আপনারা চিকিৎসার কথা বলে ১৫ লাখ টাকা জনাব গোলাম হোসেনের কাছ থেকে এনেছেন, রাতের আদারে হোসেন সাহেবের মার নান্বারে ফোন দিয়ে ওনার সাথে কথা বলেন। আপনাদের তিন জনের নিকট আমি একজন মজীব আর্দেশের সৈনিক হিসাবে অনুরুদ করবো আর আমাদের মাঝে বিভেদ সৃস্ঠি করবেন না , এক জন লোকের কার খানা থেকে কাঠ বাস এনে লাভ কি , এক জন ভালো মানুষের মান সন্মান নস্ঠ করলে আল্লাহ একজন আছেন মনে রাখবেন, শাহাদাত সাহেব আপনাদের ছেয়ে অনেক বড় মনের মজীব সৈনিক।

1,097 total views, 1 views today

মন্তব্য করুন।

Please enter your comment!
Please enter your name here