কচুয়ায় দুইপক্ষের সংঘর্ষে আহত- ১৪

 

কচুয়ার ডাক ঃ
কচুয়া উপজেলার কড়ইয়া ইউনিয়নের আকানিয়া নাছিরপুর গ্রামে জোড় পূর্বক ভাবে লাউ গাছের মুড়া লাগানোকে কেন্দ্র করে শুক্রবার দুপুরে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে প্রায় ১৫ জন আহত হয়।

ঘটনার সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার জুমআর নামাজের পূর্বে একই গ্রামের ডংগীর বাড়ির মোস্তফা গং শামসুল হকের বাড়ির সীমানায় জোড় পূর্বক ভাবে লাউ মুড়া লাগাতে গেলে শামসুল হক বাঁধা দেয়, এতে তাদের মধ্যে বাকবিতণ্ডা সৃষ্টি হয়।

বাকবিতণ্ডার এক পর্যায়ে মোস্তফা (৫০), মোস্তফার জেঠাতো ভাই তাহের মিয়া(৫২), মোস্তফার ছেলে রাসেল(২২), বাচ্চু মিয়ার ছেলে আব্দুল মান্নান(৩৫), আলী হোসেনের ছেলে রিয়াদ(১৮) প্রমুখ মিয়াজী বাড়ির মৃত ফজল হকের পুত্র শামসুল হক(৬৫), তার স্ত্রী মাহমুদা বেগম(৫৫),শামসুল হকের ছেলে মাহবুব আলম (৩৫), মোফাজ্জেল হোসেন,শামসুল হকের মেয়ে বিউটি আক্তার, খুসবু আক্তার,লিপি আক্তার, শামসুল হকের নাতনী সাথী আক্তার (১৫) ও বাচ্চু মিয়ার ছেলে আলী হোসেন (২৮) এর উপর দেশীয় অস্ত্র ও লাঠি, চঠা দিয়ে এলোপাথাড়ি হামলা চালায় এবং তাদের ঘর-বাড়ি ভাংচুড় করে ঘরের বিভিন্ন মালামাল লুটপাট করে। এদের মধ্যে শামসুল হক ও তার স্ত্রী মাহমুদা বেগমের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাদেরকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করানো হয়।

এদিকে হামলাকারী মোস্তফা গং’য়ের গ্রুপের ৪/৫ আহত হয়। আহতদের মধ্যে আব্দুল মান্নান ও রিয়াদ কচুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয়।

গুরুতর আহত শামসুল হকের ছেলে মাহবুব আলম বাদী হয়ে কচুয়া থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগের প্রেক্ষিতে এসআই হানিফ সংঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন এবং কচুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে আহতদের খোঁজখবর নেয় ও জিজ্ঞাসাবাদ করেন।

493 total views, 1 views today

মন্তব্য করুন।

Please enter your comment!
Please enter your name here