ইউনিয়ন ও গ্রামে ছোট খাটো বিরোধ নিষ্পত্তির জন্য জনগনকে গ্রাম আদালতমুখী করতে হবে- মতলবে উপজেলা নির্বাহী অফিসার শারমিন আক্তার

কচুয়ারডাক ডেস্ক  চাঁদপুর, ২৪ নভেম্বর ২০১৮: মতলব-উত্তর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শারমিন আক্তার বলেন, ছোট-খাট বিরোধ নিস্পত্তির জন্য এলাকার সকল জনগণকে গ্রাম আদালতমূখী করতে হবে। বিচার ব্যবস্থায় জনগণের প্রবেশাধিকার নিশ্চিতকরণে গ্রাম আদালত প্রতিটি ইউনিয়নে কাজ করছে। তাই, গ্রাম আদালতের বার্তা প্রচার-প্রচারণায় ইউনিয়ন পরিষদের সকল বোর্ড-সদস্য ও কর্মীদের বিশেষ উদ্যোগী হতে হবে। স্থানীয় পর্যায়ে বিরোধ নিস্পত্তির ক্ষেত্রে গ্রামআদালতের কোনবিকল্প নেই। এইআদালতের উদ্দেশ্যহচ্ছে গ্রামীণ জনপদেসাধারণ মানুষেরজন্য বিচারপ্রাপ্তিরসুযোগ সৃষ্টি করাযতে স্থানীয় বিরোধ স্থানীয়ভাবে নিস্পত্তি করা যায়।

মতলব-উত্তর উপজেলাধীন সাদুল্ল্যাপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান লোকমান আহমেদ -এর সভাপতিত্বে আজগ্রাম আদালত বিষয়ক কমিউনিটি মতবিনিময় সভায়প্রধান অতিথি শারমিন আক্তার তারবক্তব্যে এ কথাগুলোবলেন। গ্রাম আদালত প্রকল্পের সহযোগী সংস্থা ব্লাষ্টের উপজেলা সমন্বয়কারী সগির আহমেদ সরকার সভাটি পরিচালনা করেন। সভায় সাদুল্ল্যাপুর ইউপি’র গ্রাম আদলত সহকারী মমিনুল ইসলাম ও জহিরাবাদ ইউপি’র গ্রাম আদলত সহকারী রাকিব হোসেন আকাশ বিশেষ সহযোগিতা প্রদান করেন।

স্থানীয় সরকার বিভাগ, ইউরোপীয়ান ইউনিয়ন এবং জাতিসংঘ উন্নয়ন কর্মসূচি (ইউএনডিপি) -এর অর্থায়ন ও কারিগরি সহায়তায় পরিচালিত বাংলাদেশে গ্রাম আদালত সক্রিয়করণ (২য় পর্য়ায়) প্রকল্পের সহযোগিতায় কর্মশালাটি আজ মতলব-উত্তর উপজেলাধীন সাদুল্ল্যাপুর ইউনিয়নের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সাদুল্ল্যাপুর ইউনিয়নের সকল পরিষদ-সদস্য ও কর্মীবৃন্দ সহ শতাধিক গণ্যমান্য ব্যাক্তি অংশগ্রহণ করেন।

সভায় মূল আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গ্রামআদালত, স্থানীয়সরকার চাঁদপুরেরডিস্ট্রিকফ্যাসিলিটেটর(ডিএফ) নিকোলাসবিশ্বাস। তিনি বলেন, গ্রাম আদালত ফৌজদারী ও দেওয়ানী উভয় প্রকার মামলা নিস্পত্তি করে থাকে। এখানে মামলা খরচ খুবই অল্প। ফৌজদারী মামলা ফি ১০ টাকা এবং দেওয়ানী মামলা ফি ২০ টাকা মাত্র। এর বাইরে আর কোন খরচ নেই। এই আদালতে পক্ষগণ নিজের কথা নিজেই বলতে পারেন। এখানে কোন আইনজীবীর দরকার হয় না। গ্রাম আদালত নারী-পুরুষ সবার জন্য নিরাপদ ও ভয়মুক্ত।

অনুষ্ঠানের শেষ পর্যায়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শারমিন আক্তারের উদ্যোগে এবং সাদুল্ল্যাপুর ইউপি চেয়ারম্যান লোকমান আহম্মদ ও গ্রাম আদালত প্রকল্পের সহযোগিতায় গ্রাম আদালতের একটি অ্যাপস চালু করা হয়। ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ে তোলার অংশ হিসেবে সাদুল্ল্যাপুর ইউনিয়নের গ্রাম আদালতের সেবা ও কার্যক্রম অনলাইনে প্রকাশ করার লক্ষ্যে এই অ্যাপসটি পরীক্ষামূলকভাবে চালু করা হয়। অ্যাপসটি ডেভেলপ করেছে ঢাকাস্থ সফটওয়ার কোম্পানী “দেশী সিস্টেমস্ লিমিটেড”। উল্লেখ্য যে, এই কোম্পানীর পরিচালক তাজুল ইসলামের বাড়ি চাঁদপুর জেলাধীন মতলব-উত্তরে।

সভায় বক্তব্য রাখেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব শাহজাহান সরকার, সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ ইউসুফ মিয়া, সাবেক সিনিয়র সহ-সভাপতি আলহাজ্ব মুন্সি মোজাম্মেল হক মিলন, পাঠান বাজার উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ মজিবুর রহমান, বদরপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষক মোঃ রফিকুল ইসলাম, সাদুল্ল্যাপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ ফারুক হোসেন সহ পরিষদের সংক্ষিত আসনের নারী সদস্য আমেনা জসিম, ফাতেমা বেগম ও আসমা আক্তার। সভায় অত্র ইউনিয়নে কর্মরত বিভিন্ন বেসরকারী সংস্থা ও প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি ও সাংবাদিকবৃন্দ।

নিকোলাস বিশ্বাস

ডিস্ট্রিক্ট ফ্যাসিলিটেটর (ডিএফ)

ডিএফ-ভিলেজ কোর্ট
স্থানীয় সরকার বিভাগ, জেলা শাখা, রুম- ২২৯

জেলা প্রশাসকের কার্যালয়, চাঁদপুর-৩৬০০

ফোন: ০৮৪১-৬৩০২৮,

মোবা: ০১৭০৮-৪৯১৯৭৮

Email:df.villagecourt@gmail.com

22 total views, 1 views today