মাদক ব্যবসায়ী সন্ত্রাসীদের কাছে আতংকের এক নাম- ওসি(তদন্ত) শাহজাহান কামাল

 

কচুয়ার ডাকঃ
দেশের জনগনের সার্বিক নিরাপত্তার জন্যে প্রয়োজন ভাল মানের পুলিশ প্রশাসন। যাদের প্রচেষ্টায় সর্বস্তরের মানুষের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত হবে। সেজন্য প্রয়োজন সৎ, নিষ্ঠাবান, দায়িত্বশীল পুলিশ সদস্য। তবে বর্তমানে এ বাহিনীর কিছু কর্মকর্তা, পুলিশ সদস্যদের কাজের মাধ্যমে দিন দিন এ বাহিনীটির উপর আস্থা ফিরে পাচ্ছে সাধারন মানুষের। তেমনি এক কর্মকর্তা চাঁদপুর জেলার কচুয়া থানায় যিনি দায়িত্ব পালন করে কচুয়াবাসীর দৃষ্টি আকর্ষণ করতে সমর্থ হয়েছেন। যিনি একজন দায়িত্বশীল, সৎ, নিষ্ঠাবান কচুয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) শাহজাহান কামাল।
কচুয়া থানায় ২০১৭ সালের ৪ ডিসেম্বর দায়িত্বভার গ্রহনের পর থেকে এ পর্যন্ত বিগত দিন গুলোতে বার বার তিনি প্রশংসিত হয়েছেন। কচুয়া থানার আইনশৃঙ্খলা ব্যবস্থাকে একটা ভাল অবস্থানে নিয়ে যাওয়ার পিছনে অফিসার ইনচার্জের সু-পরামর্শে তার অবদানের কথা কচুয়ার সাধারণ মানুষের জানা। তার কাজে জনসাধারন যেমন খুশি তেমনি তার অধিনস্থরাও সন্তুষ্ঠ। একজন সৎ, নিষ্ঠাবান, দায়িত্বশীল অফিসার হিসেবে ইতোমধ্যে তিনি স্থান করে নিয়েছেন কচুয়া উপজেলার সাধারণ মানুষের মনে।
“পুলিশ জনগনের বন্ধু” তিনি যেন এই বাক্যটির জীবিত নিদর্শন। তিনি অন্যতম একজন আদর্শ পুলিশ অফিসার যিনি আধুনিকতা, প্রযুক্তি, সততা এবং আবেগ দিয়ে অপরাধ দমন করার চেষ্টা করেন। ম্যান ফর ম্যান, মানুষ মানুষের জন্য। মানুষের আন্তরিক প্রচেষ্টায় বদলে যেতে পারে কোন অবহেলিত জনপদের জীবনযাত্রা। ঘুরে দাঁড়াতে পারে যুব ও তরুণ সমাজ।
জানা গেছে, পুলিশ পরিদর্শক(তদন্ত) শাহজাহান কামাল কচুয়া থানায় যোগদানের পর থেকে অফিসার ইনচার্জের পরামর্শে চৌকস অফিসারদের নিয়ে রাত দিন পরিশ্রম করেন। কচুয়া উপজেলার বিভিন্ন এলাকার মাদক ব্যবসায়ীকে অন্ধকারের পথ থেকে আলোর পথে ফিরিয়ে আনার কাজ করেন। তাদেরকে বিভিন্ন কর্মসংস্থানের সুযোগ করে দেন। তাদের সৎ পথে ফিরানোর জন্য হাতে রিক্সা ও সেলাই মেশিন তুলে দিয়েছেন। এছাড়াও তিনি বিগত দিনে জঙ্গি, ছিনতাইকারী, অপহরণকারী, জাল টাকা ব্যবসায়ী, অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী, চোর, ডাকাত গ্রেপ্তারে বিশেষ অবদান রেখেছেন। যার ফলে স্থানীয় থানা ও পুলিশ বিভাগের প্রতি জনগনের স্বস্তি আসা ও বিশ্বাসের সৃষ্টি হয়েছে এবং মাদক ব্যবসায়ী সন্ত্রাসীদের কাছে আতংকের এক নাম ওসি(তদন্ত) শাহজাহান কামাল।
বর্তমান সময়ে কচুয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক(তদন্ত) শাহজাহান কামাল যোগদান করার পর থেকেই কচুয়াবাসী যেন এক নিñিদ্র নিরাপত্তার চাদরে বসবাস করছে। বর্তমান সরকারের ভাবমূর্তি রক্ষার্থে কচুয়ার আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে রাখতে অফিসার ইনচার্জের সহযোগিতায় পুলিশ পরিদর্শক(তদন্ত) শাহজাহান কামাল অকান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। ইতোমধ্যেই সন্ত্রাসী, ডাকাত, মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার, ওয়ারেন্টভুক্ত আসামী গ্রেফতার, অস্ত্র উদ্ধার সহ অপরাধ নিয়ন্ত্রণের মাধ্যমে প্রচুর সুনাম অর্জন করেছেন।
কচুয়া থানার পুলিশকে জনবান্ধব পুলিশে রূপান্তরিত করতে চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। সাধারণ জনগন স্বাচ্ছন্দে তাদের মনের কথা খুলে বলতে পারে। জনগণ আরো পুলিশের কাছাকাছি আসতে পারে। বিভিন্ন অপারেশনের পাশাপাশি সাধারণ মানুষকে সচেতন করার জন্য বিভিন্ন ধরনের সচেতন মূলক কাজ করেন। এছাড়াও তিনি নারী ও শিশুদের উপর অধিক সহানুভূতিশীল।তাদের সকল বিপদেআপদে তিনি এগিয়ে যান এবং সেগুলো তাৎক্ষণিক ভাবে সমাধান করার চেষ্টা করেন। তাছাড়া নারীদের পারিবারিক সমস্যা গুলো মামলা-মোকাদ্দামায় না গিয়ে বিকল্প ভাবে সমাধান করেন।যাতে নারী ও শিশুরা নিরাপত্তা নিয়ে সমাজের মধ্যে সুস্থ ও শান্তিপূর্ণ ভাবে বসবাস করার সুযোগ পায়।
উল্লেখ্য, এই নিষ্ঠাবান সৎ অফিসার ১০ মে ১৯৮৩ সালে লক্ষীপুর জেলার সদর উপজেলার শাকচর গ্রােেম সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্ম গ্রহন করেন। তিনি শাকচর গ্রামের অধিবাসী বিশিষ্ট সমাজ সেবক হোসেন আহমেদ বেপারীর সুযোগ্য সন্তান। তিনি ২০০৯ সালে ক্যাডেট এস.আই(সরাসরি এস.আই) হিসাবে পুলিশে যোগদান করেন। চাকুরি কালিন সময়ে সকল ক্ষেত্রে তিনি অত্যন্ত বুদ্ধিমত্তা, দক্ষতা, সততা, সাহসিকতা ও সুনামের সহিত দায়িত্ব পালন করেন। তিনি দেশবাসীর কাছে দোয়াপ্রার্থী।

91 total views, 1 views today