ডঃ মহীউদ্দিন খান আলমগীর এমপি’র ১/১১ আইনজীবী ও কচুয়ারডাক প্রধান সম্পাদক লন্ডন থেকে আজ দেশে আসছেন!

ডঃ মহীউদ্দিন খান আলমগীর এমপি র ১/১১ আইনজীবী ও কচুয়ারডাক প্রধান সম্পাদক এডভোকেট শাখাওয়াত হোসেন টিটো আজ লন্ডন থেকে দেশে আসছেন!
দীর্ঘদিন পল লন্ডন থেকে বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইটে রওয়ানা হয়ে আগামীকাল দেশে পৌছার কথা রয়েছে এ বেপারে তিনি তার ফেসবসুক স্টাটাসে একটি পোস্ট দিয়েছেন—#গ্রামেরছেলে #প্রবাসীহয়ে #নাড়ীরটানে #পবিত্রঈদুলফিতর উদযাপনে গ্রামের পথে!
#Holiday to my #Belovedcountry #Bangladesh #please #keep 🙏 #দোয়া on your #prayer.Ameen
তিনি সুস্থভাবে দেশে পৌঁছানোর জন্য সকলের কাছে দোয়া কামনা করছেন।

কচুয়ারডাক প্রধান সম্পাদক এডভোকেট শাখাওয়াত হোসেন টিটো দেশে থাকাকালীন ঢাকা প্রশাসনিক ট্রাইবুনালের আইন কর্মকর্তা ছিলেন। তিনি গত ২০০৯ সালে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পর দীর্ঘদিনের ছাত্ররাজনীতি ও আইনজীবী হিসেবে ১/১১তে বিশেষ ভুমিকা ও বংগবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা মুক্তি সংগ্রাম আন্দলন,কচুয়ার জননেতা ডঃ মহিউদ্দিন উদ্দিন খান আলমগীর এমপির আস্থাভাজন ও ১/১১তে আইনজীবী নিয়োগ একজন দক্ষ একনিষ্ঠ কর্মী এবং সততার সাথে দায়িত্ব পালনের সুবাদে সরকারি আইন কর্মকর্তা হিসেবে ঢাকা প্রশাসনিক ট্রাইবুনালে নিয়োগপ্রাপ্ত হন।

আইন কর্মকর্তা হিসেবে দীর্ঘদিন সুনামের সাথে দায়িত্ব পালন করার পর উচ্চ শিক্ষার অন্বেষনে ২০১০ সালে বিলেতে পাড়ি জমান। নর্দাবোরিয়া ইউনিভার্সিটি কোর্স সম্পন্ন করার আগেই কমনওয়েলথ আইনজীবী হিসেবে Exemption পেয়ে Barrister Regulation Authority British Bar Standard Board থেকে ২০১৪ সালে ব্যারিস্টার এট ল সম্পন্ন করার সুযোগ পেয়ে লিনকনস-ইন- এর মেম্বার হয়ে বর্তমানে পার্ট টাইম অধ্যয়ন করেছেন।

এডভোকেট শাখাওয়াত হোসেন টিটো কচুয়া কাদলা গ্রামের প্রতিথদশা রাজনীতিবিদ সাবেক বিআরডিবি কর্মকর্তা এবং স্থানীয় বীর মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আলহাজজ গাজী সোলায়মান ও অবঃ থানা হেলথকর্মকর্তা নাজমা আক্তার জৈষ্ট পুত্র।

বাবা মা’র স্বপ্ন পুরনে,ধর্মীয় ইসলামিক প্রতিষ্ঠান ও বাস্তবমুখী দক্ষতা অর্জনে এবং কর্মসংস্থানের লক্ষ্যে কারিগরী শিক্ষা সম্প্রসারণে ভোকেশনাল ইনস্টিটিউট প্রতিষ্ঠা করার আগ্রহ প্রকাশ করছেন।

বঙ্গবন্ধুর আদর্শের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ততা…………….
ছাত্র রাজনীতির হাতেখড়ি হযরত শাহ নেয়ামত শাহ উচ্চ বিদ্যালয়, কচুয়া, চাঁদপুর ৯৩-৯৬।
রাজনৈতিক আদর্শ জাতীরজনক বঙ্গবন্ধু শেখমুজিবুর রহমান ও বাবা প্রতিথদশা কচুয়ার রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজজ সোলায়মান গাজী।
স্থানীয়ভাবে রাজনৈতিক অনুপ্রেরনায় মরহুম এডভোকেট আব্দুল আউয়াল মজুমদার, সাবেক এমএলএ মেব্বার ও প্রতিষ্ঠাতা চেয়্যরম্যান কর্মসংস্থান ব্যাংক।
রাজনৈতিক অনুকরন সাবেক এম,পি মিছবাহউদ্দীন খান
সহ-সভাপতি বঙ্গবন্ধু কলেজ ছাত্রলীগ কচুয়া, চাঁদপুর ৯৬-৯৮।
কুমিল্লা কমার্স কলেজ ও কুমিল্লা জেলা ছাত্রলীগ সদস্য। অনুপ্রেরনায় রাজনৈতিক গুরু কুমিল্লার অভিবাভক তিন তিন বারের এমপি হাজী আ ক ম বাহউদ্দীন বাহার ও শফিক সিকদার পৌর নির্বাচনে বিশেষ ভুমিকা ১৯৯৮-২০০২।
ঢাকা তেজগাঁওথানা ছাত্রলীগ সদস্য ও সক্রীয় অংশগ্রহন বি এন পি জামাত বিরোধী আন্দোলন ২০০২-২০০৬ ও ১/১১ঢাকা।
সদস্য আওয়ামী আইনছাত্র পরিষদ ঢাকা ২০০৩-২০০৫।
জুনিয়র আইনজীবী হিসেবে নিয়োগ প্রাপ্ত ১/১১/২০০৭-২০০৮ দুদুক মামলা নং ১/২০০৭ (ডঃমহীউদ্দীন খান আলমগীর)
অন্যতম রুপকার ও প্রস্তাবক ড:মহীউদ্দীনখান মুক্তি আন্দোলন পরিষদ(খদ্দর হকার্স মার্কেট সমিতি অফিস গুলিস্থান) ২০০৭-২০০৮
জুনিয়র আইনজীবী হিসেবে নিয়োগ প্রাপ্ত ১/১১/২০০৭-২০০৮ জননেত্রী শেখ হাসিনা ২০০৭।
প্রতিষ্ঠাতা সদস্য আওয়ামী যুবআইনজীবী পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটি ২০০৮-পর্যন্ত।
আওয়ামী আনজীবী পরিষদ মেম্বার ২০০৭-পর্যন্ত।
সরকারী আইনজীবি হিসেবে নিয়োগ ঢাকা প্রশাসনিক ও আপীল ট্রাইব্যুনাল ২০০৯-পর্যন্ত।
সদস্য যুক্তরাজ্য আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ, লন্ডন ২০১০।
প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি “যুক্তরাজ্যে প্রবাসী চাঁদপুর” লন্ডন ২০১০।
প্রতিষ্ঠাতা সদস্য সচিব যুক্তরাজ্য বঙ্গবন্ধু আইনজীবী পরিষদ, লন্ডন(আদেশক্রমে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা)২০১৩
সদস্য লিন্কনস ইন লন্ডন,ইউকে(ব্যারিষ্টার শিক্ষানবীশ)২০১৪-পর্যন্ত।
সর্বশেষ রাজনৈতিক অনুপ্রেরনায় মরহুম মীর মোহাম্মদ ইকবাল সংসদ সদস্য পদপ্রার্থী ২০০৮ কচুয়া।
বাংলাদেশে রাজনৈতিক অভিভাবক জননেতা ডঃমহীউদ্দীন খান আলমগীর এম,পি সাবেক মন্ত্রী,প্রেসিডিয়াম সদস্য ও বর্তমান উপদেষ্টা সদস্য বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ কচুয়া,চাঁদপুর।

যুক্তরাজ্যে অধ্যয়নের পাশাপাশি বিলেতে স্থানীয় রাজনীতিতে জরিয়েছেন। তিনি ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ দলের একজন নির্বাহী সদস্য। সম্প্রতি দলের কাউন্সিলে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করার জন্য মনোনীত হয়েও তিনি তা প্রত্যাখান করেন। ব্যারিস্টার এট ল ডিগ্রী সম্পন্ন করেই তিনি বিলেতের স্থানীয় নির্বাচনে অংশগ্রহণ করার জন্য ইচ্ছাপোষণ করেন বলে জানান!

ব্যক্তিগত জীবনে তিনি বিবাহিত এবং দুই ছেলে এক কন্যা ও এক দত্তক কন্যা সন্তান রয়েছে।
কচুয়ার সর্বস্তরের জনগণকে মাহে রামাদান মোবারক ও পবিত্র ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা এবং অভিনন্দন জানান।

107 total views, 1 views today