কচুয়া পৌরসভার বাজেট নিয়ে তরুণদের প্রত্যাশা

সুজন পোদ্দার, কচুয়া ॥
রাত পোহালেই কচুয়া পৌরসভার ২০১৯-২০২০ অর্থ বছরের বাজেট ঘোষণা করতে যাচ্ছেন পৌর মেয়র নাজমুল আলম স্বপন। ওইদিন তিনি তুলে ধরবেন আগামী ১ বছরের আয়-ব্যায়ের ক্ষতিয়ান। তারই সঙ্গে থাকবে পৌরবাসীর বিভিন্ন দুর্ভোগ নিরসনের বিভিন্ন পরিকল্পনা।
কেমন হবে এই অর্থ বছরের বাজেট সমাধান হবে কোন কোন নাগরিক দুর্ভোগ কী থাকছে তরুণদের জন্য আসন্ন বাজেট নিয়ে কিবা ভাবছে তরুণ সমাজ ।

এই সব ভাবনা নিয়েই তরুণদের সঙ্গে কথা বলেছে- কচুয়ার জন প্রিয় অনলাইন পোর্টাল কচুয়ার ডাক। এ বাজেটে জনদুর্ভোগ নিরসনই তরুণদের প্রধান প্রত্যাশা। স্থায়ী সমাধানের মাধ্যমে কচুয়াকে একটি সুন্দর গোছানো পৌর শহর হিসেবে দেখতে চান তরুণ সমাজ। সম্প্রতি সময়ে সবচেয়ে বড় সমস্যা রিক্সা ভাড়া নিয়ে পৌরবাসীদের ক্ষোভের শেষ নেই। প্রায় সময় রিক্সা চালক ও যাত্রীদের মধ্যে বিরোধ দেখা যায়। বিভিন্ন কাজে প্রতিদিন পৌর শহরে আসা সাধারণ মানুষ ভোগান্তির শিকার হচ্ছে বেশি। বিভিন্ন ইউনিয়ন থেকে আসা সাধারণ মানুষকে জিম্মি করে রেখেছে রিক্সা চালকরা। ইচ্ছানুযায়ী ভাড়া নিচ্ছে রিক্সা চালকরা। এটা  দৈনিক জীবন অতিষ্ঠ করে তুলেছে যাত্র্রীদের। রিক্সার লাইসেন্স ও ভাড়া নির্ধারণে কার্যকরি প্রদক্ষেপ নিয়ে এ সমস্যা সমাধানের প্রত্যাশা করেন তরুণ সমাজ।
প্রতিদিন শত শত নারী-পুরুষ শিক্ষাগত, পেশাগত বা অপেশাগত কারনে এ পৌর শহরে আসে। কিন্তু এ শত শত মানুষের ব্যবহারের জন্য নেই পর্যাপ্ত পাবলিক টয়লেট। পৌর শহরের বিশ^রোডে অবস্থিত বাস স্ট্যান্ডে নেই কোন পাবলিক টয়লেট। বাজারের যে পাবলিক টয়লেট আছে তাতে নেই নারীদের জন্য স্বাস্থ্যকর পরিবেশ ও নিরাপত্তা। এসমস্যা সমাধানের প্রত্যাশা করেন তরুণ সমাজ।
পৌর শহরে নেই কোন বিনোদন কেন্দ্র্র। এমন স্থান নেই যেখানে পৌরবাসী একটু অবকাশ যাপন করতে পারে। পৌর মেয়র নাজমুল আলম স্বপনকে অনুরোধ করবো একটি বিনোদন কেন্দ্র তৈরি করার জন্য। এটাও তরুণ সমাজের প্রত্যাশা।
সম্প্রতি বর্ষা মৌসুমে অল্প বৃষ্টিতেই পৌর শহরের রাস্তাগুলো কাঁদায় নিমজ্জিত হয়ে জনচলাচলের অনুপযোগী হয়ে উঠছে। ড্রেনেজ ব্যবস্থা উন্নয়ন, ময়লা আবর্জনা অপসারনের সমাধান চান পৌর মেয়র নাজমুল আলম স্বপনের কাছে তরুণ সমাজ।

পৌর বাজেটে মেয়র নাজমুল আলম স্বপনের কাছে সকল সমস্যার সমাধান চান তরুণ সমাজ।

109 total views, 1 views today