কচুয়াতে আর আমলা নয় উদীয়মান উত্তর-দক্ষিন কচুয়ার এই দুই তরুন কেন্দ্রীয় মেধাবীদের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব দিয়ে দিন না!

কচুয়ারডাক নিউজ ডেস্কঃ কচুয়া উপজেলা চেয়ারম্যান শাহজাহান শিশিরে এক আবগন স্টাটাস হুবুহু তুলে ধরা হলঃ-

“দীর্ঘ দিন পর আজ এক সময়ের অতি পরিচিত জায়গা
বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রধান কাযা’লয়ে গিয়েছি। এর মধ্যে পুরাতন অনেকের সাথে দেখা হয়েছে। পুরতন দিনের অনেক সুখ দুঃখের কথা নিয়ে
আলোচনা হয়েছে। যাই হোক
এর মাঝে দেখা হয়ে গেল আমার অত্যন্ত খুবই কাছের
ছোট ভাই মহীবুল্লা মাহী, এই ছেলেটির বাবা একজন
বীর মুক্তি যোদ্ধা ছিলেন, তার বাড়ি আমার প্রাণ প্রিয়
কচুয়ায়। সেই পনের বছর আগে থেকেই তাকে দেখি
বাংলাদেশ ছাত্র লীগের একজন অগ্রনী সৈনিক হিসাবে। এক সময় ঢাকা দঃ নের ও একজন দায়িত্ব প্রাপ্ত নেতা ছিল। বত’মানে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের
উপ কমিটির সদস্য। এখন ও মাহী আমার জানামতে
এমন কোনদিন নাই যে সে একবারের জন্য কেন্দ্রীয়
অফিসে আসেনি। তার যে সংঘঠনের আদশ’তা, দায়িত্ব, মমতাবোধ, ভালবাসা আছে এই ধরনের কত’ব্য
বোধ আসলে আমাদের কতজনের আছে?
সবশেষে বলতে চাই আসলে মাহী কি পেল। সে এখন
ও বাড়ি থেকে টাকা এনে কোন রকম ভাবে দিন যাপন
করছে। অথচ এই দশ বছরে কত কত লোক হাজার হাজার কোটি টাকার মালিক হয়েছে ।

অথচ মাহীরা মাহী হয়েই থাকবে। দঃসময় দূরদিনে
মাহীরা জয়বাংলার হাতিয়ার তুলে নিবে। জীবন চলার পথে আরো দঃসহ মরু পথ পাড়ি দিতে হবে, হয়ত কোন একদিন জয়
বাংলার আদশ’ বাস্তবায়ন করতে গিয়ে কোন একসময় রাজপথে বা কোন এক জেলখানার নিজ’ন প্রকোষ্ঠ সেলে দিন কাটাতে হবে।
পরিশেষে বলতে চাই তুমি সব সময়ে ভাল থাকবে। কেউ কাছে আসুক বা না আসুক জীবনের নিয়তি তোমাকে
নিয়ে যাবেতোমার সকল কমে’র দিকে।
ভালো থাকবে, সুস্হ থাকবে, সব সময় তোমার জন্য এই দোয়া কামনা করে শেষ করছি, খোদা হাফেজ, আল্লাহ তোমার সহায় হোক”।

49 total views, 1 views today