কচুয়ারডাক চরম আর্থিক সংকটে পতিত, আর্থিক অনটনের কারনে বন্ধের পথে কচুয়ার বহুল আলোচিত ও জনপ্রিয় অনলাইন এবং প্রস্তাবিত প্রিন্ট কচুয়ারডাক!

কচুয়ারডাক চরম আর্থিক সংকটে পতিত, আর্থিক অনটনের কারনে বন্ধের পথে কচুয়ার বহুল আলোচিত ও জনপ্রিয় অনলাইন এবং প্রস্তাবিত প্রিন্ট কচুয়ারডাক!

দীর্ঘদিন বেতন ভাতা না পাওয়ায় নিয়মিত কাজ করছেন না দেশ বিদেশে অনেক রিপোর্টারগন, পরিচালকগন বড়জোড় ডিসেম্বর পর্যন্ত চালাতে সক্ষম, অন্যথায় দেশে বিদেশে লাখ পাঠক ও ভক্তদের কাঁদিয়ে বন্ধ করা ছাড়া আর অন্য কোন উপায় থাকবে না।

আগামী জানুয়ারি থেকে যেকোন ডোনেশন গ্রহণ করা হবে বলে জানান কচুয়ারডাক প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক ও সম্পাদক এডভোকেট শাখাওয়াত হোসেন টিটো, তিনি এই প্রতিবেদক কে বলেন গত দুই বছর সফলভাবে পরিক্ষামূলকভাবে অনলাইন নিউজ আপডেট ও ধারাবাহিক নিউজ প্রদান অব্যাহত থাকায় আমাদের গত দুই বছরে প্রায় ১০ মিলিয়ন ভিজিটর এবং ১৫ হাজার নিয়মিত ফেসবুক পাঠক এবং কচুয়ার ৪ লাখ পাঠকের একমাত্র মুখপাত্র হিসেবে কাজ করতে ও পাঠকদের মনের খোঁড়াক যোগাতে সক্ষম হয়েছে। গত দুই বছরে ডোমেইন, হোস্টিং সার্ভিস, মেনটেনেছ, হাই সিকিউরিটি, হ্যাকিং থেকে পুনরুদ্ধার করা,বেতন, ব্যানার, আলোচণা সভা, সংবাদ টাইপ, বিভিন্ন ট্রাভেল খরচসহ প্রায় ২০ লক্ষ্য টাকার অধিক খরচ ও বিনিয়োগ রয়েছে, বন্ধ করে পাঠকদের মনে কস্ট দিতে চায় না কচুয়ারডাক পরিচালকগণ, সবকিছু নির্ভর করছে কচুয়ারডাক সম্পাদকীয় বোর্ড ও উপদেষ্টা পরিষদের সিদ্ধান্তের উপর।

কচুয়ারডাক প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব গাজী সোলায়মান
ফাউন্ডেশনের অলাভজনক প্রতিষ্ঠান হিসেবে ফাউন্ডেশানের চেয়ারম্যান এডভোকেট শাখাওয়াত হোসেন টিটোর সুদক্ষ পরিচালনায় পরিচালিত হয়ে আসছিল কিন্তু সম্পাদক বর্তমানে প্রবাসে অবস্থান করায় তা দেখভাল করা নিয়ে অনেকটা সমন্বয়হীনতার মধ্যে পরে যায়,সে ক্ষেত্রে আর্থিক অনটন থেকে কাটীয়ে উঠা এবং ডোনেশান সংগ্রহ ও জানুয়ারি থেকে নতুন সম্পাদক খোঁজবে কচুয়ারডাক সম্পাদকীয় বোর্ড ও উপদেষ্টা পরিষদ।
বিঃদ্রঃ জনপ্রিয় অনলাইন ও অলাভজনক এই প্রতিষ্ঠানটি চালাতে যে কোন ধরনের ডোনেশান কে স্বাগত জানাবে সম্পাদকীয় বোর্ড।

59 total views, 3 views today