কচুয়া উপজেলায় পুকুরের চারটি পাড় পাকাকরনের জনশ্রুতি থাকলেও ইট পাথরের ছোয়া লাগেনি কাদলা গুরত্বপূর্ণ সড়কটিতে-স্থানীয় সাংসদ ও চেয়ারম্যানের হস্তক্ষেপ কামনা করছে জনগন!

কচুয়ারডাক নিউজ ডেস্কঃকচুয়া উপজেলায় একটি পুকুরের চারটি পাড় পাকাকরনের জনশ্রুতি থাকলেও ইট পাথরের ছোয়া লাগেনি এখনো যে গুরত্বপূর্ণ সড়কটিতে -স্থানীয় সাংসদ ও চেয়ারম্যানের হস্তক্ষেপ কামনা করছে এলাকার জনগন!

কচুয়া উপজেলার ৮নং কাদলা ইউনিয়ন  কাদলা গ্রামের ৬নং ওয়ার্ডের জনগুরুত্বপূর্ণ প্রাচীন সড়ক কাদলা বাজার টু দরবেশগঞ্জ বাজার সড়কের খুবই বেহালদশা দেখার কেউ নেই!

কাদলায়  এই সড়কটিকে গ্রামের নাভি বলা হয়-

গ্রামের এ সড়ক দিয়ে শত শত শিক্ষার্থী প্রতিদিন স্কুল ও  মাদ্রাসায়
যাতায়াত করেন- অন্যতম হলো
# প্রাচীন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান কাদলা ফাজিল (ডিগ্রী) মাদ্রাসা
# কাদলা খাদিজাতুল কোবরা মহিলা দাখিল মাদ্রাসা
# দরবেশগঞ্জ বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়
# ৬১নং দরবেশগঞ্জ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়
# কাদলা আল-আমিন হাফিজিয়া ক্যাডেট ও ফোরকানিয়া মাদ্রাসা
# কাদলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়
# কাদলা মডেল কিন্ডারগার্ডেন স্কুল
এ ছাড়াও এই সড়ক দিয়ে প্রতিদিন শত শত মানুষের পদচারনায় মুখরীত হয়—
# কাদলা বাজার
# দরবেশগঞ্জ বাজার
# রঘুনাথপুর বাজার

কাদলা গ্রামের সবগুলো সড়কের নির্মাণ কাজ ও পাকাকরন করা হলেও এ সড়কটি আজও পাকাতো দূরের কথা বিগত বিএনপি-জামাত জোট এবং বর্তমান আওয়ামীলীগ সরকারের আমলেও ইট পাথরের কোন ছোঁয়া লাগেনি এই জন-গুরুত্বপূর্ণ রাস্তাটিতে।

এলাকাবাসীর দীর্ঘ দিনের প্রানের দাবী সড়কটি অন্তত পাকাকরনসহ নির্মাণ কাজের দ্রুত উদ্যোগ গ্রহণের যথাযথ পদক্ষেপ কতৃপক্ষ নেবেন।

কচুয়া উপজেলা প্রশাসন ও জনপ্রতিনিধিদের দৃ্ষ্টি আর্কষণ করে স্থানীয় জনগন বলেন শিগ্রই জনগুরুত্বপূর্ণ সড়কটি নির্মাণের উদ্যোগ গ্রহণ করত জনগনের দুঃখ লাগবে সচেস্ট হবেন!

কচুয়া  যুবলীগ সহ-সভাপতি আবদুল হাই বলেন দরবেশগঞ্জ থেকে কাদলা বাজার রাস্তাটি অলরেডি টেন্ডারের আওতায় আছে বাজেট প্রায় ৩কোটি ৭৫ লাখ টাকা, যথাযথ  প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ হলে খুব শীগ্রই কাজ শুরু হবে এবং এর সুফল কাদলা গ্রামবাসী ভোগ করবে, তিনি আরও বলেন বি এণ পি- জামাত জোট ক্ষমতায় থাকাকালীন সময়ে গ্রামে কোন উন্নয়ন হয়নি, মিথ্যা মামলা ও হামলা হয়েছে আমাদের উপর, আমরা প্রতিশোধ নেই নি গ্রামের উন্নয়নের স্বার্থে শান্তির পথ বেঁছে নিয়েছি। আমার নেতা কচুয়ার মানুষের শেষ আশ্রয়স্থল জননেতা ড.মহিউদীন খান আলমগীর উনার নিজের ইউনিয়ন এবং কাদলা গ্রামে উদরা খালের সকল ব্রীজ, প্রাইমারি স্কুল ভবন, হাইস্কুলের ভবন এবং মসজিদ মাদ্রাসা, ঈদ্গাহ সহ সকল রাস্তাঘাটের কাজ ইতিমধ্যেই  তিনি সম্পন্ন করে দিয়েছেন, এবং কিছু কাজ প্রক্রীয়াধীন রয়েছে। ধন্যবাদ কচুয়ারডাক পরিবারকে উক্ত বিষয়টি তুলে ধরার জন্য।

(মোহাম্মদ গোফরান মজুমদার কাদলাবাসীর পক্ষে)